Google Maps এ, অঞ্চলভিত্তিক দেখা যাবে আক্রান্তের প্রবণতা

Google Maps এ, অঞ্চলভিত্তিক দেখা যাবে আক্রান্তের প্রবণতা

Google Maps এ, অঞ্চলভিত্তিক দেখা যাবে আক্রান্তের প্রবণতা: করোনা ভাইরাস নিয়ে আমাদের মনে অনেকটাই আতঙ্ক কমেছে বটে, কিন্তু আক্রান্তের সংখ্যা এখনো একইভাবে বেড়েই চলেছে। রোজই কোনো না কোনো কারণে আমাদের বাড়ির বাইরে বেরোতে হচ্ছে। এক্ষেত্রে ভিড়-জমায়েত ইত্যাদি থেকে গা বাঁচিয়ে চলা কিংবা করোনা প্রবণ এলাকাগুলি থেকে দূরে থাকাই বাঞ্ছনীয়! আর তাই, টেক জায়ান্ট Google, তার ম্যাপিং পরিষেবায় একটি নতুন ফিচার নিয়ে আসতে চলেছে। রিপোর্ট অনুযায়ী, এবার থেকে Google Maps-এ কোনো অঞ্চলে কোভিড-১৯ ভাইরাসের প্রবণতা প্রদর্শিত হবে, অর্থাৎ ইউজাররা কোথাও যাওয়ার সময় সেই অঞ্চলে করোনার প্রভাব সম্পর্কে ওয়াকিবহাল থাকতে পারবেন।

Google Maps এ, অঞ্চলভিত্তিক দেখা যাবে আক্রান্তের প্রবণতা
Google Maps এ, অঞ্চলভিত্তিক দেখা যাবে আক্রান্তের প্রবণতা



গুগল জানিয়েছে, Google Maps অ্যাপ্লিকেশনের নতুন কোভিড লেয়ার অপশনটি, ইউজাররা কোথায় যাবেন বা বাইরে বেরিয়ে কী করবেন – সেই বিষয়ে সচেতন সিদ্ধান্ত নিতে সহায়তা করবে। এরপর থেকে, গুগল ম্যাপ অ্যাপ্লিকেশনটি খুললেই ওপরে ডানদিকের কোণায় একটি লেয়ার বাটন দেখতে পাওয়া যাবে। ওই সেকশনে ‘Covid-19 info’ নামের একটি অপশন দেখতে পাওয়া যাবে। সেটিতে ক্লিক করলেই, ইউজাররা ম্যাপে কোনো অঞ্চলের বিগত সাত দিনের নতুন কোভিড-১৯ কেস দেখতে পাবেন।

শুধু তাই নয়, অঞ্চল বিশেষে করোনার ঘনত্ব যাতে সহজেই নির্ধারণ করা যায়, সেজন্যে গুগল ম্যাপে কিছু কালার কোড যুক্ত করা হয়েছে। গুগল বলেছে, যে সমস্ত দেশে গুগল ম্যাপ অ্যাপটি চালু আছে, সেই দেশের ট্রেন্ডিং কেস ডেটা ম্যাপে দৃশ্যমান হবে। এই ডেটার মধ্যে রাজ্য, জেলা এবং শহর-স্তরের তথ্য দেখতে পাওয়া যাবে।

সংস্থাটি জানিয়েছে, তারা গুগল ম্যাপে এই কোভিড-১৯ সুরক্ষা স্তরটি যুক্ত করার জন্য জনস হপকিনস, নিউ ইয়র্ক টাইমস এবং উইকিপিডিয়া থেকে প্রাপ্ত তথ্য ব্যবহার করছে। এদিকে ওই সূত্রগুলি – বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (WHO), সরকার এবং স্থানীয় স্বাস্থ্য সংস্থার মতো বিশ্বাসযোগ্য উৎস থেকে তথ্য সংগ্রহ করে। ফলে, গুগল ম্যাপে করোনা প্রবণতা সম্পর্কে সঠিক তথ্য পরিবেশন করা হবে এমনটা আশা করাই যায়।

প্রসঙ্গত, গত জুন মাসেও এমনই একটি ফিচার এনেছিল গুগল। ওই ফিচারটির সাহায্যে, ইউজাররা করোনা পরিস্থিতিতে কোন রাস্তা দিয়ে গেলে ভিড় ও যানজট এড়িয়ে ফাঁকা ফাঁকায় গন্তব্যে পৌঁছতে পারবেন বা কোন রুটের বাস বা ট্রেনগুলিতে বেশি ভিড় রয়েছে সে সম্পর্কে সচেতন থাকতে পারবেন।


পুরাতন পোস্টসমূহ

Related posts