৫ জনের বেশি কাউকে মেসেজ ফরোয়ার্ড করা যাবেনা ফেসবুক মেসেঞ্জারে

৫ জনের বেশি কাউকে মেসেজ ফরোয়ার্ড করা যাবেনা ফেসবুক মেসেঞ্জারে

  ভুয়ো খবর ছড়িয়ে পড়া আটকাতে বিভিন্ন পদক্ষেপ নিচ্ছে সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মগুলি। ঠিক এই কারণেই এবার নতুন সীমাবদ্ধতা আনতে চলেছে Facebook। ইতিমধ্যেই সামনে এসেছে নিজের প্ল্যাটফর্মে বিশৃঙ্খলা রুখতে এই সোশ্যাল মিডিয়া জায়ান্ট নতুন গাইডলাইনস আনছে। এছাড়াও Facebook, Messenger ইউজারদের একটি নতুন লিমিটে বাঁধতে চলেছে, যার ফলে ইউজাররা একবারে কেবল পাঁচ জন অন্য ইউজারকে বা পাঁচটি গ্রুপে কোনো মেসেজ ফরোয়ার্ড করতে পারবে।

৫ জনের বেশি কাউকে মেসেজ ফরোয়ার্ড করা যাবেনা ফেসবুক মেসেঞ্জারে

এই নতুন লিমিট বেঁধে দেওয়ার বিষয়টির কথা মার্চ মাসে প্রথমবার সামনে এসেছিল। বেশ কিছুদিন ধরে এটি পরীক্ষাধীন অবস্থায় ছিল, এখন এটি পর্যায়ক্রমে সমস্ত ইউজারের জন্য রোলআউট করা হচ্ছে। এখন থেকে কোনো ফেসবুক মেসেঞ্জার ইউজার, কোনো মেসেজ ৫ জনের বেশি ইউজারের সাথে শেয়ার করতে চাইলে, তৎক্ষণাৎ একটি নোটিফিকেশন প্রদর্শিত হবে – “ফরোয়ার্ডিং লিমিট রিচড।”

এই বিষয়ে বৃহস্পতিবার একটি ব্লগ পোস্টে মেসেঞ্জার প্রাইভেসি অ্যান্ড সিকিউরিটির প্রোডাক্ট ম্যানেজমেন্টের ডিরেক্টর জে সুলিভান বলেছেন – নতুন ফরোয়ার্ডিং লিমিট, ভাইরাল হওয়া ভুল তথ্য এবং ক্ষতিকারক কন্টেন্ট ছড়িয়ে পড়ার বিষয়টি কিছুটা হলেও কমাতে সক্ষম হবে।

বছর দুয়েক আগে, ফেসবুকের মালিকানাধীন WhatsApp এর ক্ষেত্রেও এই ধরণের লিমিট বেঁধে দেওয়া হয়েছিল। এমনকি হোয়াটসঅ্যাপের এই ধরণের মেসেজগুলিতে “ফরোয়ার্ডেড” লেবেল দেখতে পাওয়া যায়। এখন দেখার বিষয়, মেসেঞ্জারে এই লিমিটটি কতটা কার্যকরী হয়। প্রসঙ্গত, আইওএস ডিভাইসের মেসেঞ্জারে অ্যাপ্লিকেশন লক ফিচার উপলব্ধ হয়েছে, খুব তাড়াতাড়ি অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশনের ক্ষেত্রেও এই ফিচারটি দেখা যাবে।

নবীনতর পোস্টসমূহ পুরাতন পোস্টসমূহ

Related posts